মোটা বাচ্চা ছিলাম, ওজন কমিয়ে ফিল্মে ঢুকেছি’

বর্তমান নবাগত অভিনেত্রীদের মতো সিনেমা বিষয়ে এত কিছু শিখে আসেননি বলিউড তারকা সোনাক্ষী সিনহা। ফিল্মে ঢোকার আগে তাঁর কোনো প্রস্তুতি ছিল না। ২০১০ সালে বলিউড সুপারস্টার সালমান খানের সঙ্গে দাবাং ছবিতে জুটি বেঁধে সিনেজগতে অভিষেক তাঁর। বলেছেন, তিনি কখনোই অভিনেতা হতে চাননি। ইন্ডাস্ট্রিতে ঢোকার পরই সব শিখেছেন।

‘আমি কখনোই অভিনেতা হতে চাইনি। কখনোই কোনো কর্মশালায় যাইনি। অভিনয় বা নাচের ক্লাসে যাইনি। বলিউডে এখন যাদের অভিষেক হচ্ছে, তাদের সবাই সব রকম প্রস্তুতি নিয়ে এসেছে। তাঁরা জানে কীভাবে ক্যামেরার মুখোমুখি হতে হয়, ফটোগ্রাফারদের সামনে কীভাবে পোজ দিতে হয়। আমি এসবের কিছুই জানতাম না। আমি মোটা বাচ্চা ছিলাম। ওজন কমিয়েছি আর ফিল্মে ঢুকেছি। সেটের সামনেই আমি সবকিছু শিখেছি’, বলেন জনপ্রিয় এ অভিনেত্রী।

এই অভিনেত্রী এত পথ পাড়ি দেওয়ার পরও শেখা থামাননি। ‘এখনও শিখছি। এমন কি আজও মনে করি, যাদের সঙ্গে দেখা হয়, কাজ করি, সবাই কিছু শিখিয়েছে। সবার কাছ থেকেই শেখার আছে আর আশা করি, এই প্রক্রিয়া শেষ হয় না’, যোগ করেন সোনাক্ষী। খবর ডিএনএর।

সোনাক্ষী সিনহা ‘দাবাং’, ‘রাউড়ি রাঠোরের’ মতো জনপ্রিয় বাণিজ্যিক ধারার ছবি দিয়ে শুরু করলেও এখন তিনি সিনেমা নির্বাচনে কৌশলী। ‘আকিরা’, ‘নুর’ করার পর তিনি জনসচেতনতামূলক ছবিতে কাজ করতে চাইছেন। চিত্রনাট্য বেছে ছবি করছেন ৩১ বছর বয়সী এ অভিনেত্রী।

‘আগে সচেতনতামূলক ছবিতে কাজ করিনি। সিদ্ধান্ত বদলেছে। আমি কখনোই বসে থাকিনি। ক্যারিয়ারের শুরুটা ছিল বাণিজ্যিক ধারার সিনেমা দিয়ে এবং যা আমাকে অভিনেত্রী হিসেবে অনেক বেশি পরিচিত করেছে।’

এখন ‘আকিরা’, ‘নুরের’ মতো ছবি তাঁর কাছে আসছে। সোনাক্ষী মনে করেন, মূলধারার সিনেমায় কাজ করে তাঁর আত্মবিশ্বাস বেড়েছে। সামনেই আসছে তাঁর হ্যাপি ফির ভাগ জায়েগি, যেটি ২০১৫ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত হ্যাপি ভাগ জায়েগির সিক্যুয়েল। সোনাক্ষী খুশি এ কারণে, এখন অনেক ছবিই হচ্ছে যেগুলোতে নারীর ভূমিকা শক্তিশালী।

‘এই প্রবণতা বাড়ছে। আশা করি, এটা চলতে থাকবে। কারণ এটা আমার মতো মানুষদের অনেক সুযোগ এনে দেবে। আমি এটা ভালোবাসি।’

কমেডি ছবিতেও অভিনয় করেছেন সোনাক্ষী। ‘সন অব সরদার’ ও ‘ওয়েলকাম টু নিউইয়র্ক’ ছবিতে কাজ করেছেন তিনি। বলেন, ‘প্রত্যেক অভিনেতার জন্যই কিছু কাজ সহজ, কিছু কঠিন। কমেডি কঠিন, ব্যক্তিগতভাবে আমি উপভোগ করি বলেই কাজ করি। এটা আমার জন্য উপযুক্ত কারণ ব্যক্তিজীবনেও আমি খুব মজার মানুষ। বরং আবেগী দৃশ্যই আমার কাছে কঠিন।’

সোনাক্ষী ছাড়াও ‘হ্যাপি ফির ভাগ জায়েগিতে’ অভিনয় করেছেন জিমি শেরগিল ও ডায়ানা পেনটি। আগামী ২৪ আগস্ট মুক্তি পাবে ছবিটি। এছাড়া করণ জোহরের ‘কলঙ্ক’ ছবিতে তাঁকে দেখা যাবে।

‘আমি বেশ ভালো বোধ করছি। কিছু ভালো কাজ করছি। প্রত্যেক ছবিকেই আমার প্রথম ছবি মনে করি। আর আশা করি, এ ভাবনা বদলাবে না।’

শেয়ার করুণঃ

shares