নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ১২ বছর পর এলো নতুন শিশু

দীর্ঘ ১২ বছর পর ব্রাজিলের বিচ্ছিন্ন দ্বীপ ফার্ন্দান্দো দ্য নরোনায় প্রথম কোনো বাচ্চা জন্ম নিয়েছে। এতদিন ওই দ্বীপে বাচ্চা জন্মদান সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ ছিল। শনিবার ওই দ্বীপে একটি মেয়ে শিশু জন্ম নেয়।

দ্য গার্ডিয়ানের এক প্রতিবেনে বিষয়টি জানানো হয়েছে। তবে যে নারী ওই দ্বীপে সন্তানের জন্ম দিয়েছেন তার নাম-পরিচয় প্রকাশ করা হয়নি। পরিবার বলছে, তারা গর্ভ ধারনের বিষয়টি জানতো না।

স্থানীয় গণমাধ্যমের বরাত দিয়ে দ্য গার্ডিয়ান জানায়, ৩ হাজার জনগোষ্ঠীর বসবাস ছোট দ্বীপটি বণ্যপ্রাণীদের সংরক্ষণের জন্য বিখ্যাত। এখানে সন্তান জন্ম দেয়া নিষিদ্ধ, কারণ প্রসূতি মায়ের সেবা-যত্নের জন্য দ্বাপটিতে আলাদা কোনো প্রসূতি বিভাগ নেই।

দ্বাপটিতে কোনো সন্তানসম্ভবা মায়ের সন্ধান পাওয়া গেলে তাকে মূলভূখণ্ডে চলে যেতে বলা হয়। মূল ভূখণ্ডে দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর নাটাল অবস্থিত। সমুদ্র থেকে ২২৭ মাইল অতিক্রম করে যেতে হয় নাটাল।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওই নারী জানান, তার আরও একটি সন্তান রয়েছে। ওর জন্ম মূল ভূখণ্ডে হয়েছিল। তবে সদ্য জন্ম নেয়া সন্তানের গর্ভ ধারণের বিষয়টি তিনি আগে থেকে বুঝতে পারেননি বলে গণমাধ্যমেকে জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, শুক্রবার রাতে আমি হঠাৎ খুব ব্যথা অনুভব করি। যখন আমি বাথরুমে গেলাম, দেখলাম দুই পায়ের মাঝখান দিয়ে কিছু যেন বের হচ্ছে। এ সময় আমি আমার স্বামীকে ডাকি এবং তিনি সেটি বের করে আনেন। পরে দেখি এটা তো একটা বাচ্চা। এতে আমি নিজেই তো হতভম্ব হয়ে গিয়েছি

শেয়ার করুণঃ

shares