খালেদা জিয়ার সাথে দেখা করতে পারলেন না বিএনপি নেতারা

বিএনপির নেতাকর্মীরা ঈদের দিনেও খালেদা জিয়ার সাক্ষাৎ পাননি। ঈদের নামাজ শেষ করে বুধবার (২২ আগস্ট) বেলা সাড়ে ১২টায় নাজিম উদ্দিন রোডে পুরনো কারাগারে গিয়ে তারা ফিরে এসেছেন।

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় সাজা হওয়ার পর সাড়ে ৬ মাস থেকে কারাবন্দি রয়েছেন বিএনপির চেয়ারপারসন। ঈদুল ফিতরের পর ঈদুল আজহাও কারাগারে কাটছে তার।

ঈদের দিন দলের চেয়ারপারসনের সঙ্গে দেখা করতে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, নজরুল ইসলাম খান, মির্জা আব্বাস, ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল আউয়াল মিন্টু, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আমান উল্লাহ আমান, মহিলা দলের সভাপতি আফরোজা আব্বাস পুরনো কারাগারের নাজিম উদ্দীন রোডে যান।

কিন্তু আগে থেকেই নাজিম উদ্দীন রোডের মাথায় ব্যারিকেড তৈরি করে রাখে পুলিশ। সেখানেই বিএনপি নেতাদের আটকে দেয়া হয়। ব্যারিকেড উপেক্ষা করে সামনের দিকে আগানোর চেষ্টা করেননি বিএনপি নেতারা।

তবে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এবং ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন অনুমতি চেয়ে বিএনপির প্যাডে লেখা চিঠি পুলিশকে দেখিয়ে বলেন, ‘দেখা করার অনুমতি চেয়ে যথাযথ কর্তৃপক্ষকে আমরা চিঠি দিয়েছি। তাছাড়া ঈদের দিন আত্মীয়-স্বজন এবং রাজনৈতিক সহকর্মীদের সঙ্গে দেখা করার সুযোগ বন্দির আইনগত অধিকার।’

এ সময় দায়িত্বরত পুলিশ কর্মকর্তা তাদেরকে বলেন, ‘দেখা করার ব্যাপারে আমাদের কাছে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কোনো নির্দেশনা নেই। যথাযথ কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে নির্দেশনা পেলে আমরা দেখা করতে দিতাম।’

এরপর পুলিশের সঙ্গে কথা না বাড়িয়ে দুপুর পৌনে ১টার দিকে নাজিম উদ্দীন রোড থেকে ফিরে যান বিএনপির সিনিয়র নেতারা।

সিনিয়র নেতারা চলে যাওয়ার পর মহিলা দল, যুবদল, স্বেচ্ছাসেবক দল, ছাত্রদলসহ ঢাকা মহানগর বিএনপির বিভিন্ন ইউনিটের নেতাকর্মী সমর্থকরা নাজিম উদ্দীন রোডে দাঁড়িয়ে স্লোগান দেন। সম্ভাব্য পরিস্থিতি মোকাবেলায় সতর্ক অবস্থান নেয় পুলিশ।

শেয়ার করুণঃ

shares