আশরাফুল একটা সুন্দর নাম

আশরাফুলের নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ পুরোপুরি শেষ হয়ে যাচ্ছে আজ। এখন জোর আলোচনা জাতীয় দলে তাঁর ফেরা, না-ফেরা নিয়ে। কাল প্রধান নির্বাচক জানিয়েছেন, এখনই তাঁদের ভাবনায় নেই আশরাফুল। আজ বিসিবির মিডিয়া কমিটির প্রধানও বললেন একই কথা

স্পট ফিক্সিংয়ে জড়ানোর অপরাধে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ও ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগে পাঁচ বছর নিষিদ্ধ ছিলেন মোহাম্মাদ আশরাফুল। আজ শেষ হচ্ছে সেই নিষেধাজ্ঞা। এখন জাতীয় দল কিংবা বিপিএলে সুযোগ পেতে বাধা নেই আশরাফুলের। যেটি নিয়ে আলোচনা হচ্ছে, নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ফেরা ৩৪ বছর বয়সী ব্যাটসম্যান আদৌ জাতীয় দলে ফিরতে পারবেন কি না।

নিষেধাজ্ঞা যেহেতু উঠে যাচ্ছে, আশরাফুলের সামনে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের দুয়ার উন্মুক্ত হচ্ছে। কিন্তু সেই দরজা দিয়ে তাঁর ‘প্রবেশে’র সুযোগ হবে, নাকি হবে না, সেটি নিয়েই প্রশ্ন। কাল বিসিবির প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন পরিষ্কার জানিয়ে দিয়েছেন, এ মুহূর্তে তাঁদের ভাবনায় নেই আশরাফুল।

সামনের মৌসুমে আশরাফুল কেমন খেলেন, সেটি আগে দেখতে চান নির্বাচেকরা। আশরাফুলের ফেরা না-ফেরা নিয়ে বিসিবির মিডিয়া কমিটির প্রধান জালাল ইউনুসও আজ সংবাদমাধ্যমকে ভিন্ন কিছু বলেননি। আর দশজন ক্রিকেটারের মতোই বিবেচনা করা হবে তাঁকে, মন্তব্য করেছেন জালাল ইউনুস, ‘আশরাফুল ইজ আ নেম (শুধু একটা নাম)। দশজন ক্রিকেটার যেভাবে জাতীয় দলে আসে, তাকেও সেভাবে আসতে হবে। আপনারা জানেন, পাঁচ বছর বাইরে ছিল। দুই মৌসুম যে খেলেছে (প্রথম শ্রেণির ম্যাচ ও লিস্ট ‘এ’), সেটা যথেষ্ট নয়। ফিটনেসও একটা বিষয়। সে নির্বাচকদের ভাবনায় আছে কি না, জানি না। কাল দেখেছি প্রধান নির্বাচক বলেছেন, এখনই সে তাঁদের ভাবনায় নেই। সামনে ঘরোয়া মৌসুম আছে, সব সংস্করণে তাকে খেলতে হবে। নির্বাচকেরা তিন সংস্করণে তাকে দেখতে চাচ্ছেন। তাকে আরও কিছুদিন অপেক্ষা করতে হবে।’

আগামী বিপিএলে আশরাফুলের সুযোগ মিলবে কি না, সেটিও এখন বলার উপায় নেই। জালাল ইউনুস শুধু এটুকুই বললেন, ‘পরের বিপিএলে খেলার যোগ্যতা তার থাকতে হবে। তবে দলে নেওয়া না-নেওয়া ফ্র্যাঞ্চাইজিদের ওপর নির্ভর করে।

শেয়ার করুণঃ

shares