আকাশবীণা’ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

বিমানের বহরে যুক্ত হওয়া অত্যাধুনিক বোয়িং ৭৮৭-৮ ড্রিমলাইনার ‘আকাশবীণা’ উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বুধবার দুপুরে হজরত শাহজালাল (রহ.) আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এটির উদ্বোধন করেন তিনি।

সন্ধ্যায় আকাশবীণার প্রথম বাণিজ্যিক ফ্লাইট ঢাকা থেকে মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুরের উদ্দেশে ছেড়ে যাবে।

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স সূত্র জানায়, আকাশবীণা দিয়ে আপাতত মালয়েশিয়া ও সিঙ্গাপুরে ফ্লাইট পরিচালনা করা হবে। ঢাকা-সিঙ্গাপুর-ঢাকা রুটে ইকোনমি ক্লাসের ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে (কর ও চার্জ ছাড়া) ২০০ মার্কিন ডলার। এছাড়া ঢাকা-কুয়ালালামপুর-ঢাকা রুটে ইকোনমি ক্লাসের ভাড়া ২৯০ মার্কিন ডলার।

আমেরিকার বোয়িং কোম্পানির তৈরি বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ৭৮৭-৮ ড্রিমলাইনার ১৯ আগস্ট বিকেলে ঢাকায় এসে পৌঁছায়। যুক্তরাষ্ট্রের সিয়াটল পেনফিল্ড থেকে কোনো যাত্রাবিরতি ছাড়াই টানা সাড়ে ১৪ ঘণ্টা উড়ে ঢাকায় অবতরণ করে এটি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উড়োজাহাজটির নাম দিয়েছেন ‘আকাশবীণা’।

গত বুধবার দুপুরে ‘আকাশবীণা’র প্রথম পরীক্ষামূলক ফ্লাইট ঢাকা থেকে কলকাতায় যায়। বিমানের সিনিয়র পাইলট ক্যাপ্টেন ফজল আহমেদ ও বোয়িংয়ের ক্যাপ্টেন রিচার্ড এম ডেনটন ফ্লাইটটি পরিচালনা করেন। এতে বেসামরিক বিমান চলাচল ও পর্যটন মন্ত্রণালয়, সিভিল অ্যাভিয়েশন অথরিটি, বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের কর্মকর্তাসহ ২৯ জন আরোহী ছিলেন। বুধবার বিকেল পৌনে পাঁচটায় এটি ঢাকায় ফিরে আসে।

বিমানের বহরে বোয়িংয়ের আরও তিনটি ৭৮৭-৮ ড্রিমলাইনার যোগ হতে যাচ্ছে। এর মধ্যে একটি আগামী নভেম্বরে ও অন্য দু’টি ২০১৯ সালের শেষ দিকে আসবে।

শেয়ার করুণঃ

shares